Unlimited PS Actions, graphics, videos & courses! Unlimited asset downloads! From $16.50/m
  1. Design & Illustration
  2. Drawing

মানব দেহতত্ত্বের মূলনীতিঃ শক্তির প্রয়োগ দেখতে এবং আঁকতে শিখা

by
Read Time:9 minsLanguages:
This post is part of a series called Learn How to Draw.
How to Draw Creatively Using Photo References
How to Draw on a Tiny Budget: Single Pencil Drawing
This post is part of a series called Human Anatomy Fundamentals.
Human Anatomy Fundamentals: Basic Body Proportions

Bengali (বাংলা) translation by Bint Salim (you can also view the original English article)

একটি  প্রানবন্ত মানবদেহ অঙ্কনের যাবতীয় কলা কৌশল শেখার জন্য এটা হচ্ছে প্রথম নিবন্ধ। তবে মানবদেহতত্ত্ব সম্পর্কে অধ্যয়ন করার আগে, আমরা একটি অপরিহার্য প্রস্তুতি নিয়ে কাজ করতে যাচ্ছিঃ একটি দেহের নড়াচড়া বা স্থির থাকার সময় শক্তির দিক পরিবর্তন দেখা এবং কৌশলে তা স্থির চিত্রে রূপান্তর করা।


বিশদ প্রযুক্তিগত গবেষণার আগে প্রাথমিক ভিত্তি

একটি দেহের কারিগরি গবেষণা যদিও একজন শিল্পীর জন্য প্রয়োজন, কিন্তু এর দ্বারা একটি নির্দিষ্ট পরিসংখ্যান বা দেহ-কাঠামোই তুলে ধরা সম্ভব। এটি শরীরবিজ্ঞান অধ্যয়নের সাধারণ বৈশিষ্ট্য যা বাস্তব জীবনের গবেষণা দ্বারা সমর্থিত নয়: এর ফলে ছাত্ররা যেমন শিখেছে তেমনভাবেই একটি দেহ তৈরি করে, এর বাইরে তাঁরা যা দেখছে সেখান থেকে নতুন কিছু তৈরি করতে পারে না। যদিও একজন মানুষের ব্যক্তিত্বকে চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলার বিষয়টি শিক্ষা দেয়া বা ছকের মধ্যে নিয়ে আসা সম্ভব নয়। ব্যক্তিত্বের শক্তি হচ্ছে – খুশিভাব, দ্রুতগতি, দুঃখিতভাব, অবিচল ভাব, বাচ্চাসুলভ ভঙ্গিমা, অনিশ্চিতভাব, আমুদে ভাব, ক্লান্ত ভাব – আপনি জীবন থেকেই কেবলমাত্র এসব জিনিষ “শিখতে” পারেন। আমি এখানে “শিখতে” শব্দটিতে উদ্ধৃতির প্রয়োগ করেছি, কারণ আপনি নিশ্চয়ই এসব জিনিষ আপনার মগজ দিয়ে শিখার আশা করবেন না ( যেভাবে আপনি শিখেছেন দুই চোখের দূরত্ব একটি চোখের সমান)। আপনি এসব জিনিষ নিজের দেহে আত্মস্থ করার মাধ্যমে শিখতে পারেন। যদি আপনি নিজের দেহ দিয়ে অঙ্গভঙ্গিগুলো অনুভব করতে পারেন, তাহলে আপনি নিজে থেকেই আঁকতে পারবেন। এটাই হচ্ছে অভিব্যক্তিপূর্ণ, প্রানবন্ত অঙ্কনের মূল চাবিকাঠি। এই প্রক্রিয়াটি শুধু মানুষ জন্যই নয় এবং জড়বস্তুর জন্যও একই রকম।

নীচের ইমেজে চরিত্র দুটি একই রকম। তাঁদের মানসিকতার কারণে একটি সুক্ষ্ম পার্থক্য ফুটে উঠেছে, এবং চিত্রে এই অভিব্যক্তিটি প্রকাশ পেয়েছে – যদিও মুখের অভিব্যাক্তি কি তা পরিষ্কার নয় – স্বাভাবিক ভাবেই প্রতিটি মানসিকতা অনুভব করতে সক্ষম হলে তার থেকে অঙ্গবিন্যাস প্রভাবিত হয়ে থাকে।

Example of feeling used in drawingExample of feeling used in drawingExample of feeling used in drawing

নিচের ছবিতে, এমন কিছু জিনিস আছে যার জন্য আপনি কোনও রেফারেন্স পাবেন না! এই ক্ষেত্রে আপনার আত্মকরণ ক্ষমতা হচ্ছে মূল সম্পদ।

Feel replacing referencesFeel replacing referencesFeel replacing references

দয়া করে এটাকে কঠিন ভাববেন না! এটা আসলে কৌশলপূর্ণ কারণ আমরা সব সময়ই আমাদের মন দিয়ে শিখতে চেষ্টা করেছি, এবং ভাল ও অবাধে আঁকার জন্য এটি হচ্ছে একটি বাঁধা। এই মাসে আমরা অতিরিক্ত চাপ দূর করে শিথিল হবার চেষ্টা করবো এবং বেশ কিছু সহজাত জিনিষ বুঝতে চেষ্টা করবো।

আমরা যা করবো তা হচ্ছে, জীবন্ত মানুষকে পর্যবেক্ষণ করা এবং তাঁদের শক্তির ব্যবহার কাগজে ফুটিয়ে তোলা।


প্রথম পর্যায়ঃ বাস্তব জীবন থেকে দ্রুত, স্থায়ী স্কেচ তৈরি করা

আপনার যা দরকার হবে তা হচ্ছে একটি সস্তা স্কেচবুক (এটা খুব এমন ছোট হবে না, যাতে শুধুমাত্র আপনার হাত কাজ করতে পারেঃ বরং আপনার সমগ্র বাহুটি যাতে স্কেচবুকের উপর থাকে, এমন হবে) এবং একটি গাড়, স্থায়ী অংকন সামগ্রী যেমন একটি বল পয়েন্ট, মার্কার অথবা একটি মোম পেন্সিল।

এরপর, আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে মানুষকে দেখুন এবং খুব দ্রুত, মাত্র কয়েক সেকেন্ডে তাঁদের অভিব্যাক্তি, অঙ্গভঙ্গি এবং আবেগ অনুভুতির স্কেচ তৈরি করুন। আমি নীচের পাতাটি একটি কফিশপে বসে পূর্ণ করেছি, যেখানে মানুষ বৃষ্টির জন্য তাড়াহুড়া করছিলো।

Crowd quick sketchesCrowd quick sketchesCrowd quick sketches

আপনি দেখতে পাচ্ছেন, এখানে কোন শিল্প নেই, অনুপাত সঠিক করার কোনও প্রচেষ্টা নেই অথবা প্রথমেই বিস্তারিত বিবরণ যোগ করার কোন বালাই নেই কখনও কখনও অঙ্গভঙ্গি দেখানো হয়েছে, আবার কখনও কখনও দেখানো হয়নি, এটা আসলে তাঁদের অঙ্গবিন্যাসের উপর নির্ভর করে। এই আঁকিবুঁকিগুলো প্রাথমিক পর্যায়ের হলেও এগুলো কিছু একটা বোঝায়ঃ আপনি এই মানুষগুলো কি করছে তা অন্তত বুঝতে পারছেন। কিন্তু এদের প্রত্যেকের ক্ষেত্রেই একটি জিনিষ বোঝা যাচ্ছে যে, তারা অতি তাড়াতাড়ি কোথাও যেতে চাচ্ছেন, কিন্তু তারা কেমন তা শনাক্ত করা যাচ্ছে না। তাঁদের শক্তির বহিঃপ্রকাশ ভিন্নরকম। শক্তির ব্যবহারের স্থিরচিত্র বলতে আমি এটাই বোঝাতে চেয়েছি, এবং আপনাকে এর উপরেই অনুশীলন করতে হবে!

শরীরবিদ্যা শিখার আগে আমরা এটা করেছি কারণ, এই দক্ষতা প্রানবন্ত মানবদেহ আঁকার জন্য দরকার হবে; যদি ট্যাকনিকাল ড্রয়িং আগে শিখানো হয়, তাহলে এইরকম আঁকার ধরন পরিবর্তন ও প্রানবন্ত করে তোলা কঠিন হতে পারে। মানুষ যাতে "কাষ্ঠবিদ্যায়" আটকে যায় এটা আমরা চাই না নিচের ড্রয়িংয়ে, আপনি নিশ্চয়ই চূড়ান্ত লাইনের নীচে শক্তির স্কেচ দেখতে পাচ্ছেন, এবং এটা কীভাবে একটি দ্রুত স্কেচের উপর সঠিক শরীরবিদ্যা ফুটিয়ে তোলে, তাও দেখতে পাচ্ছেন।

Energy underlying finished drawingEnergy underlying finished drawingEnergy underlying finished drawing

এই প্র্যাকটিসের আরেকটি কাঙ্ক্ষিত ফলাফল হচ্ছে: আমরা পর্যবেক্ষণ করার মাধ্যমেই অনেক কিছু শিখতে পারি, কিন্তু সক্রিয়ভাবে পর্যবেক্ষণ করে আরও বেশী শিখতে পারি (যেমন, স্কেচিং)। উপরের স্কেচটি করার সময়, আমি লক্ষ্য করেছি কীভাবে একজন মানুষ ভারী বস্তু তোলার সময় বাঁকা হয়ে যায়, এই ক্লান্ত সমাজে ন্যায়পরায়ণ ব্যক্তিদের খুঁজে পাওয়া কতই না বিরল, কয়জন মানুষ তাঁদের কানে আইফোন ধরে রেখেছে, ইত্যাদি। কেবল নিরীক্ষণ করা ভালো এবং এতে কোনও সময় নষ্ট হয় না, কিন্তু যা দেখছেন তার স্কেচ তৈরি করা আরও ভালো: এটা অনেকটা "সেভ" বাটনে ক্লিক করার মত যাতে আপনি পরবর্তীতে এই টেকনিক পুনরায় ব্যবহার করতে পারেন। আপনি যতবেশি নিরীক্ষণ এবং স্কেচ করবেন, ততবেশি আপনার দেহ সম্পর্কে জানবেন, সহজাতভাবেই বুঝতে পারবেন কীভাবে বিভিন্ন জিনিষ আঁকতে হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে এটা কাজে লাগবে (এবং অবশ্যই, আপনার ড্রয়িং ক্যারিয়ারের জন্যও)।

কিছু টিপসঃ

  • এটা অনেক বেশী করুন, প্রতিদিন অন্ততঃ দুই পৃষ্ঠা পূর্ণ করতে ভুলবেন না। সীমিত পর্যায়ে আঁকতে পারে এমন একজন শিল্পীকে অনুসরণ করুনঃ ড্রয়িং শেখা আসলে প্র্যাক্টিসের উপর নির্ভরশীল, এখানে প্রতিভা আবশ্যক নয়।  আপনি হয়তো কখনই অনেক বেশী আঁকতে পারেন না, কিন্তু আপনি যত বেশী আঁকবেন, ততবেশি উন্নত ও দ্রুত আঁকতে পারবেন।  তাই অধ্যবসায়ের সাথে অনুশীলন করুন, অনুশীলনের উপর আপনি আপনার ফলাফল পাবেন। পেশাদার শিল্পীরা নিয়মিত এঁকে থাকেন এবং কখনই জীবন থেকে স্কেচ তৈরি করা বন্ধ করেন না।
  • এ জন্য পেন্সিল ব্যবহার করবেন না। এটা আঁকার সরঞ্জাম হিসেবে বেশ বিচক্ষন। এমন কিছু বেছে নিন যা দিয়ে মসৃণভাবে আঁকা সম্ভব, এবং যেটা আর বাতিল করা যাবে না।
  • চিত্র থেকে স্কেচিং করতে চেষ্টা করবেন না। আমরা বাস্তবিক শক্তির স্কেচ তৈরি করছি! একটি স্থিরচিত্র আপনাকে এক্ষেত্রে কোনও সাহায্য করবে না, এবং এটা আপনাকে অনেক সময় ধরে ভাবাবে। কোনও ভিডিওচিত্র থেকে দেখে দেখেও আঁকতে পারেন যদি প্রয়োজন হয়, অথবা আপনি যদি প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই দক্ষ হয়ে উঠেন এবং আরও গতিশীল ভাবে আপনার হাতকে নড়াচড়া করাতে চান (যেমন বিভিন্ন খেলাধুলা অথবা মারকুটে চলচ্চিত্র)।
  • যদি আপনি বিশেষ ধরনের ব্যক্তি হোন (আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছে): নিজে নিজেকে বিচার করবেন না। আপনি যদি আঁকতে গিয়ে অন্য অনেকে মত নিজের মধ্যম পন্থা কি তা খুঁজে বের করতে না পারেন, তাহলে আপনি কখনই শিখতে পারবেন না। পাশাপাশি, এটাও মনে রাখবেন এক্ষেত্রে সবকিছুই সঠিকভাবে হতে হবে এমন কোনও কথা নেই, কারণ কেউ আপনাকে এজন্য নম্বর দিচ্ছে না। এখানে মূল বিষয় হচ্ছে, নিজের দক্ষতা বাড়ানো, এবং এটা কেবল প্রশিক্ষনের মাধ্যমেই সম্ভব।  ছড়ানো ছিটানো স্কেচের পরিবর্তে বরং যেখানে শক্তির সঞ্চয় হচ্ছে সেই জায়গাটিতে পেঁচানো স্কেচ তৈরি করুন, যেমন পেশীর সঙ্কোচন ও প্রসারন, এর ফলে আপনি স্বস্তি অনুভব করবেন।
  • যদি আপনি হতাশবোধ করেন এবং বর্তমানে যে অবস্থানে আছেন তাতেই সন্তুষ্ট থাকেন, তাহলে ঠিক আছে।  ভালো ফল পেতে লেগে থাকুন। ঐ ব্যক্তিদ্বয়ের কথা চিন্তা করুন, যারা সর্বপ্রথম উড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো এবং পাহাড়ের পাদদেশে তাঁদের বাহুতে কাঠের ডানা লাগিয়ে প্রায় একবছর অনুশীলন করেছিলো।

দ্বিতীয় পর্যায়ঃ কোন রেফারেন্স ছাড়াই দ্রুত এবং স্থায়ী স্কেচ তৈরি করা

যখন আপনি অতিদ্রুত কোন কিছু আঁকতে স্বচ্ছন্দবোধ করবেন (এবং আমি পূর্বেও যেমন বলেছি, যতবেশি অনুশীলন করবেন, ততই ভালো), তখন আপনি দ্বিতীয় পর্যায়ে যেতে পারেন, একই ধরনের অনুশীলন, কিন্তু এবার কোনও রেফারেন্স না দেখেই আঁকতে হবে।

এটা হচ্ছে সেই জায়গা যেখানে ”অঙ্গভঙ্গিটা নিজের দেহ দিয়ে অনুভব” করতে হয়।  কোন বস্তুকে আপনার মনের চোখ দিয়ে দৃশ্যমান করতে হবে তা নয়—আবার এটা বাদ দিতে হবে তাও নয়, বরং এটা যাতে ফলাফল হিসেবে প্রকাশ পায়। নিচের স্কেচটি, যেটা করতে সর্বমোট তিন মিনিট সময় লেগেছে, আমি তাঁদের ছবি ফুটিয়ে তুলতে চাই নি, কিন্তু তারা যেই ভাব-ভঙ্গিমা দেখিয়েছে তাই ফুটিয়ে তুলেছি, যদিও তারা কেমন হবে তাও আমার মাথায় আছে। এর মধ্যে বেশ কিছু চিত্রই সম্পূর্ণ বোঝা যাচ্ছে না, কিন্তু এগুলোর মধ্যেও আপনি সম্ভবত মোটা একটি লোক টেবিলে বসে আছে, মাথার চুল টেনে ধরার ভঙ্গিমা, কপাল চাপড়ানো, তলোয়ার সহ একজন অবিচল লোক, উচ্ছল বালিকাটিকে নিশ্চয়ই শনাক্ত করতে পারছেন...

Sketches without referenceSketches without referenceSketches without reference

এবার একদিন কাল্পনিক লোকজন দিয়ে দুটি পেইজ পূর্ণ করুন যারা কাল্পনিক কাজকর্ম করছে, পর্যবেক্ষণ করার পরিবর্তে বরং মনে মনে ভাবুন যে আপনি আসলে কি আঁকতে যাচ্ছেন। কোন বিষয় ভাবা বা বুঝতে পারা অন্যান্য বিষয় থেকে কঠিন মনে হতে পারে এবং এটা খুব সাধারণঃ কোন কোন সময় একজন আর্টিস্টকে অনেকটা অভিনেতার মত করে কাজ করতে হয়! যদি আপনি যেই মুখভঙ্গিমাটি আঁকছেন তা নিজের মধ্যে ফুটিয়ে তুলতে পারেন (যেমনটি আমি সর্বদাই করি) তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন আমি কি বোঝাতে চাচ্ছি।  একজন অভিনেতার মতই একজন আর্টিস্টকেও বিভিন্ন “ভূমিকা” সম্পর্কে অভিজ্ঞ হতে হবে অথবা বিভিন্ন চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ফুটিয়ে তুলতে সমর্থ হতে হবে...যেই বিষয়টি আমরা তৃতীয় পর্যায়ে দেখাতে চাচ্ছি।


তৃতীয় পর্যায় (ঐচ্ছিক)ঃ মানুষ নয় এমন ফিগার ও বস্তুসমূহ বিবেচনা করুন

প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায় উভয়টিই খুব সুন্দরভাবে প্রানী, গাছপালা ও স্থির বস্তু সমূহে প্রয়োগ করা সম্ভব!  প্রত্যেকটি বস্তুরই বিশেষ শক্তি আছে, প্রত্যেকটি বস্তুই এক একটি বিশেষ চরিত্র। এমনকি চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য অনুপস্থিত থাকলেও এটি একটি চরিত্র।  যদিও আমরা শুরু থেকেই আসলে মানবদেহতত্ত্ব সম্পর্কে জানতে চেষ্টা করছি, কিন্তু আপনার পছন্দমত যেকোনো বিষয় নিয়েই আপনি স্কেচের অনুশীলন করতে পারেন।

Non-human sketchesNon-human sketchesNon-human sketches

যেসব বিষয় বিবেচনা করবেন

নির্ভুলতার উপর একটি বিশেষ নোট

লক্ষ্য করুন কীভাবে একটি বিশদ স্কেচ (এবং অবশ্যই এটা প্রয়োজন) বিষয়বস্তুর সাথে সামঞ্জস্য রেখে স্বাধীনভাবে প্রস্তুত করা হয়ঃ

Difference between sketch and subjectDifference between sketch and subjectDifference between sketch and subject

এটা গুরুত্বপূর্ণ।  কারন আমি যান্ত্রিকভাবে তৈরি করার পরিবর্তে মানুষটি কীভাবে পিয়ানো বাজাচ্ছে তা অনুভব করতে পেরেছি, যা কেবলমাত্র কোন বস্তুর আকার ফুটিয়ে তোলার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।  একটি বস্তুর স্কেচ তৈরি করলে তা মূল বস্তু থেকে ভিন্নরকম মনে হতে পারে, কিন্তু তারপরও বস্তুটি পরিষ্কার বোঝা যায়। এ কারণেই ট্রেসিংয়ের মাধ্যমে অংকন করা ভালো পদ্ধতি নয় যার জন্য খুব বাস্তবসম্মত ও আশ্চর্যজনক অঙ্কনও অনেক সময় দেখতে মলিন এবং প্রাণহীন মনে হয়ঃ ট্রেসিং করলে কোন কিছুই প্রানবন্ত হয়ে উঠে না।  হয়। যখন আমরা সমতল পৃষ্ঠায় প্রানবন্ত ছবি ফুটিয়ে তুলতে চাই তখন আমাদের অঙ্কনে নিজেদের থেকে কিছু বাড়তি অনুভূতি যোগ করা প্রয়োজন। একারণেই মেডিক্যালের নিখুঁত শরীরবিদ্যা শিখার চেয়ে শক্তির অনুভূতি দেখতে এবং আঁকতে শিখা গুরুত্বপূর্ণ। একটি প্রানবন্ত অংকন একটি প্রাণহীন পেপার ট্রেসিংয়ের চেয়ে অনেক বেশী আকর্ষণীয় (অবশ্যই এটা দেখতে মোটামুটি সঠিক হলেই হবে—সম্পূর্ণ নিখুঁত হতে হবে এমন কোন কথা নেই)।

এটাকে আমরা বস্তুগত বা বিষয়গত বনাম উদ্দেশ্যগত অংকন বলতে পারি। একজন আর্কিটেক্ট বা ইঞ্জিনিয়ার পরিকল্পনাসমূহ অংকন করেন, একজন মেডিক্যাল চিত্রকর, একজন প্রকৃতিপ্রেমীর কোন একটা উদ্দেশ্য নিয়ে আঁকতে হয়।  কিন্তু একজন চিত্রকরই সাধারনত কেবল বস্তুগত বা বিষয়গত অঙ্কনের সাথে সংশ্লিষ্ট থাকেন (যেকারনে এটা আমাদের প্রথম পাঠ), বিশেষ করে যখন নিজস্ব স্টাইল তৈরি করার প্রয়োজন দেখা দেয়।

স্টাইল সম্পর্কে একটি নোট

অনেক অল্পবয়সী এবং উঠন্ত চিত্রকররা তাঁদের নিজস্ব স্টাইলের বিকাশ সম্পর্কে সচেতন। স্টাইল হচ্ছে আপনার নিজস্ব অনন্য ভঙ্গিমায় কোনও বাস্তব জিনিষকে তুলে ধরা। এটা এমন কিছু নয় যা আপনি নতুন করে গড়বেন।  এটা এমন অনুশীলনের উপর নির্ভরশীল যার জন্য আপনাকে অংকন এবং অংকন এবং অনেক বেশী অংকন করতে হবে। যাতে আপনি কোন রকম চিন্তা ভাবনা ছাড়াই আঁকতে পারেন। এবং এমন জায়গা থেকে অংকন শুরু করতে পারেন যেটা কেবলমাত্র আপনার নিজস্ব স্টাইল।  আপনার নিজস্ব স্টাইলটি কয়েক বছর ধরে সব ধরনের অংকনেই প্রতিফলিত হতে পারে যদি না আপনি জোর করে অন্য কারো স্টাইল অনুকরণ না করেন। আমি বছর বলেছি, কিন্তু আপনি যদি অনেক বেশী করে অনুশীলন না করেন তাহলে আপনার নিজস্ব স্টাইল স্থায়ী নাও হতে পারে। তাই আঁকুন এবং এই বিশ্বাস রাখুন যে আপনি আপনার নিজস্ব স্টাইল আবিষ্কার করতে পারবেন। ঠিক যেভাবে, আপনি চাইলেই আপনার দেহকে গঠন করতে পারেন না; এটা নিজেই নিজেই গঠিত হবে যতক্ষন পর্যন্ত আপনি সঠিক খাবার খাবেন। নিজস্ব স্টাইলের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য।  জোর করে কিছু করতে চেষ্টা করবেন নাঃ এটা নিজে নিজেই পরিস্ফুটিত হবে।


আপনার স্কেচটি আমাদের সঙ্গে শেয়ার করুন

এই মাসে তিনটি পর্যায়ের অন্ততঃ দুটি পর্যায় করতে চেষ্টা করুন। রাস্তা, টেলিভিশন এবং অন্যান্য জায়গা থেকে দেখে কি আঁকতে শিখেছেন তা আমাদের সাথে শেয়ার করুন।  একজন অপরজনের অংকন দেখার মাধ্যমে আমরা শিখতে পারি এমনকি নতুন ভঙ্গিমাও আবিষ্কার করতে পারি। 

One subscription.
Unlimited Downloads.
Get unlimited downloads