Students Save 30%! Learn & create with unlimited courses & creative assets Students Save 30%! Save Now
Advertisement
  1. Design & Illustration
  2. Print Design
Design

ফটোশপে প্রমোশনাল ফ্লায়ার তৈরি করার পদ্ধতি

by
Difficulty:IntermediateLength:LongLanguages:

Bengali (বাংলা) translation by Syeda Nur-E-Royhan (you can also view the original English article)

Final product image
What You'll Be Creating

গ্রাফিক ডিজাইনের জন্য ফটোশপ দারুণ একটা টুল। বিশেষ করে শুধুমাত্র স্ক্রিনে দেখানো যায় এমন সব ডিজিটাল গ্রাফিক্স। এছাড়া যে কোন ফটোগ্রাফে খুঁটিনাটি পরিবর্তন আনার কাজ তো রয়েছেই।  তবে ফটোশপ শুধু এই কাজেই পারদর্শী তা নয়। যথাযথ জ্ঞান ও কল্পনাশক্তির ব্যবহার করতে পারলে ফটোশপ দিয়ে চোখ ধাঁধানো সব প্রিন্ট ডিজাইন করাও সম্ভব।

উপরের ফ্লায়ারটির মতো নজরকাড়া ফ্লায়ার তৈরি করতে যে মূল ধাপগুলো পার হতে হয় তা এই টিউটোরিয়ালে দেখানো হবে। ফটোশপ থেকে প্রিন্ট-করতে-প্রস্তুত সিএমওয়াইকে কালার দিয়ে এগুলো সাথে সাথেই প্রিন্ট করা যাবে। আপনি হুবহু এই ফ্লায়ারটি তৈরি করতে এই টিউটোরিয়ালটি ফলো করতে পারেন। অথবা এই একই প্রক্রিয়ায় আপনার মনের মতো ফ্লায়ার স্টাইল পেতে কন্টেন্ট আর রঙে পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারেন অল্প কিছু ধাপেই।

টিউটোরিয়াল অ্যাসেটস

এই টিউটোরিয়ালে একভাটো মার্কেট থেকে বিনামূল্যে পাওয়া ইমেজ ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে শুধুমাত্র এই প্রজেক্টের জন্য আমি ইলাস্ট্রেটর দিয়ে বিশেষভাবে তৈরি কিছু ভেক্টর আইকন ব্যবহার করেছি। আপনি এই প্রত্যেকটাই এই টিউটোরিয়ালের সাইড বারের ডাউনলোড ট্যাবে খুঁজে পাবেন। সাথে আপনার কাজের সাথে তুলনা করে দেখার জন্য একটা সম্পূর্ণ পিএসডি ফাইলও পাবেন।

এই টিউটোরিয়াল প্রক্সিমা নোভা ফন্ট ফ্যামিলি ব্যবহার করা হয়েছে। এর সাথেই রয়েছে টাইপকিট বা একটি অ্যাডোবি ক্রিয়েটিভ ক্লাউড সাবস্ক্রিপশন। আপনি চাইলে এই ফন্টটি আপনার কম্পিউটারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে নিয়ে এই টিউটোরিয়ালে ব্যবহার করতে পারেন। অথবা চাইলে একই ধরণের আপনার নিজস্ব কোন একটি টাইপফেস ব্যবহার করতে পারেন।

নির্দেশিকার সাহায্যে ডকুমেন্ট সেটআপ করুন

প্রথম ধাপ

প্রথমে, প্রিন্টের জন্য সঠিক সাইজ এবং সেটিঙে একটা ডকুমেন্ট সেট করুন। ফটোশপে নিউ ডকুমেন্ট তৈরি করুন। এটির ডাইমেনশন ২১৬X১৫৪ মি.মি.তে সেট করুন। এই ডাইমেনশনে A5 সাইজের পেপারের প্রতি ধারে ৩ মি.মি. ব্লিড থাকবে। যেহেতু আমরা প্রিন্টের জন্য শিল্পকর্ম তৈরি করতে যাচ্ছি, কাজেই কালার মোড সিএমওয়াইকে-তে এবং রেজোল্যুশন ৩০০ পিক্সেল/ইঞ্চি-তে সেট করুন।

new photoshop document

দ্বিতীয় ধাপ

ব্লিড এরিয়া চিত্রিত করার জন্য নতুন নির্দেশনা তৈরি করুন। ইলাস্ট্রেটর আর ইনডিজাইনে এই সুবিধাটি বিল্ট-ইন করা আছে। তবে ফটোশপে এটি আমাদের নিজেদের তৈরি করে নিতে হবে। টপ রুলার থেকে কারসর টেনে নিয়ে একটি অনুভূমিক নির্দেশিকা তৈরি করতে মুভ টুল (ভি) এবং শিফট কী ব্যবহার করুন। খেয়াল রাখুন যেন ওয়াই-অ্যাক্সিসের ৩ মি.মি.তে নির্দেশিকাটি থাকে।

add horizontal guide

তৃতীয় ধাপ

ডকুমেন্টের প্রতিটি কিনারায় নির্দেশিকা তৈরি করতে এই প্রক্রিয়াটি অনুসরণ করুন। খেয়াল করে নিন যে প্রতিটি নির্দেশিকা তার সাথের কিনারার সাথে ৩ মি.মি. ইনসেট করা আছে

finished guides

ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করা

ধাপ ১

নতুন লেয়ার তৈরি করতে Shift-Cmd-N চাপুন। ফোরগ্রাউন্ড কালার হিসেবে সাদা রং দিয়ে ভরে ফেলুন (অলটার-ব্যাকস্পেস)। নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার সিএমওয়াইকে স্লাইডারটি চালু করা আছে যাতে আপনি প্রিন্ট কালার ব্যবহার করতে পারেন।

cmyk sliders

ধাপ ২

নতুন একটি গ্র্যাডিয়েন্ট ওভারলে তৈরি করুন লেয়ার স্টাইল প্যানেলে যেয়ে গ্র্যাডিয়েন্ট এডিট করুন। হোয়াইট স্লাইডার লোকেশন ৩০%-এ সেট করুন। ব্ল্যাক স্লাইডারের রং ফ্যাকাশে হলুদে (C=9 M=6 Y=14 K=0) পরিবর্তিত করুন।

gradient overlay in Photoshop menu
লেয়ার প্যানে fx বাটন থেকে একটি গ্র্যাডিয়েন্ট ওভারলে নিয়ে যোগ করে দিন...
Photoshop Gradient Editor
...এরপর আপনার গ্র্যাডিয়েন্টটি কাস্টমাইজ করুন...
pick stop colors
...আপনার ডকুমেন্টের জন্য যেমন রং চান ঠিক তেমনটি দিয়ে

ধাপ ৩

রেক্ট্যাঙ্গল টুল (ইউ) ব্যবহার করে নতুন একটি রেক্ট্যাঙ্গল তৈরি করুন। এটির আকার ২১৬ মি.মি. বাই ৫৬ মি.মি. হিসেবে সেট করুন।

Create a rectangle

ধাপ ৪

ডকুমেন্টের উপরের বাম কোণে রেক্ট্যাঙ্গলটি সারিবদ্ধভাবে রাখুনডার্ক ব্রাউন (C=49 M=74 Y=80 K=70) রং দিয়ে এটি পূর্ণ করুন।

Add dark brown rectangle

ধাপ ৫

রেক্ট্যাঙ্গলের নিচের ধারে পেন টুল (পি)-এর সাহায্যে একটি নতুন অ্যাংকর পয়েন্ট যুক্ত করে দিন।

add anchor point to rectangle

ধাপ ৬

ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ)-এর সাহায্যে চমৎকার একটি বেজিয়ার কার্ভ তৈরি করতে অ্যাংকর হ্যান্ডল নিয়ে কাজ করতে থাকুন।

bezier curve

ধাপ ৭

রেক্ট্যাঙ্গলটিকে নিচের আকৃতিতে খাপ খাওয়াতে চাইলে একই ধাপ অনুসরণ করুন।

adjust curved rectangle

ধাপ ৮

File > Place Embedded-এ যান..., এরপর রিসোর্স প্যাক থেকে people-1.jpg ইমেজ সিলেক্ট করুন।

add picture

ধাপ ৯

ডকুমেন্টের চারপাশে ছবি আনা নেওয়ার জন্য মুভ টুল (ভি) ব্যবহার করুন। এটিকে নিচে যেভাবে দেখানো হয়েছে সেভাবে উপরের কোণায় স্থাপন করুন।

place picture

ধাপ ১০

রেক্ট্যাঙ্গল টুল (ইউ)-এর সাহায্যে একটি নতুন রেক্ট্যাঙ্গল তৈরি করুন। এটির সাইজ ২১৬ মি.মি. বাই ১০০ মি.মি.তে সেট করুন।

add another rectangle

ধাপ ১১

ছবির উপরে বাম কোণায় রেক্ট্যাঙ্গলটিকে স্থাপন করার জন্য ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ) ব্যবহার করুন।

place rectangle over photo

ধাপ ১২

রেক্ট্যাঙ্গল টুল প্যানেল অপশনে মাস্ক সিলেক্ট করুন। এর ফলে ছবির সাথে লেয়ারে একটি ভেক্টর মাস্ক তৈরি হবে।

add vector mask to rectangle

ধাপ ১৩

পেন টুল (পি)-এর সাহায্যে মাস্কে একটি নতুন অ্যাংকর পয়েন্ট যোগ করুন। ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ)-এর সাহায্যে একটি বাঁকা বেজিয়ার কার্ভ তৈরি করুন।

add anchor point to mask

ধাপ ১৪

পেন টুল এবং ডিরেক্ট সিলেকশন টুল, এই দুটোই ব্যবহার করে মাস্কটিকে নিচের আকৃতির সাথে খাপ খাওয়ানোর চেষ্টা করুন। অ্যাংকর পয়েন্টগুলোর অবস্থান এবং আকৃতিগুলোর সরলতা লক্ষ্য করুন। আপনি যতো কম অ্যাংকর পয়েন্ট ব্যবহার করবেন, ফাইনাল মাস্কটি ততো মসৃণ মনে হবে।

adjust mask to see curve

ধাপ ১৫

Filter > Blur > Gaussian Blur -এ যান। রেডিয়াস ৬-এ সেট করুন।

add blur

ধাপ ১৬

স্মার্ট ফিল্টারস মাস্ক সিলেক্ট করুন। মাস্কটি বাম থেকে ডানে অস্পষ্ট করে দিতে গ্র্যাডিয়েন্ট টুল (জি) ব্যবহার করুন।

add smart filter
Gradient Direction
ইমেজটি ডান দিকে অস্পষ্ট করে দিতে গ্র্যাডিয়েন্ট ডিরেকশন বাম থেকে ডানে সেট করুন

ধাপ ১৭

নতুন একটি লেয়ার মাস্ক তৈরি করুন। ফটোটে ধাপগুলো বিলীন করে দিতে ব্রাশ টুল (বি) ব্যবহার করুন। কিছু মৌলিক অনুপ্রেরণা ও সৃষ্টিশীলতায় উদ্বুদ্ধ হয়ে কাজ করুন।

add layer mask
fade stairs to reveal brown

ধাপ ১৮

অ্যাডজাস্টমেন্ট প্যানে সূর্যের আইকনটি ক্লিক করে নতুন একটি ব্রাইটনেস/কন্ট্রাস্ট অ্যাডজাস্টমেন্ট লেয়ার তৈরি করুন। ব্রাইটনেস ৪০-এ এবং কন্ট্রাস্ট ১০-এ সেট করুন।

add brightness adjustment layer

ধাপ ১৯

অ্যাডজাস্টমেন্ট লেয়ারে রাইট ক্লিক করে ক্রিয়েট ক্লিপিং মাস্ক অপশনটি সিলেক্ট করুন। এতে করে ব্রাইটনেস সেটিংটি শুধুমাত্র নিচের ছবিতে প্রয়োগ করা হবে।

create clipping mask

ধাপ ২০

নতুন একটি সলিড কালার তৈরি করুন। কালার ফিলটি ব্রাউনে (C=30 M=80 Y=100 K=30) সেট করুন।

add color

ধাপ ২১

ফটো লেয়ার থেকে ভেক্টর মাস্কে ক্লিক করুন। অলটার কী চেপে ধরুন এবং মাস্কটি ব্রাউন কালার ফিলের উপর দিয়ে টেনে নিয়ে যান। এতে করে সিলেক্ট করা মাস্কটির একটি অনুলিপি তৈরি হবে।

duplicate mask

ধাপ ২২

ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ) ব্যবহার করুন এবং উপরের ডানের অ্যাংকর পয়েন্ট উপরের ডান কোণায় টেনে নিয়ে যান।

add anchor point to color layer

ধাপ ২৩

ব্রাউন ফিলের নিচে ছবির কিছু অংশ উন্মুক্ত করতে ব্রাশ টুল (বি) ব্যবহার করুন। লেয়ার ওপাসিটি ৭৫%-এ সেট করুন।

reveal photo below the brown fill

ধাপ ২৪

রেক্ট্যাঙ্গল টুল (ইউ)-এর সাহায্যে একটি নতুন রেক্ট্যাঙ্গল আঁকুন।

Add another new rectangle

ধাপ ২৫

রেক্ট্যাঙ্গলটি হালকা ব্রাউন রং (C=10 M=65 Y=100 K=10) দিয়ে পূর্ণ করুন।

light brown

ধাপ ২৬

গাঢ় ব্রাউন রেক্ট্যাঙ্গলের নিচে লেয়ারটি হালকা ব্রাউন রেক্ট্যাঙ্গলের সাথে স্থাপন করুন।

move layer

ধাপ ২৭

নিচে যেমন দেখানো হয়েছে সেভাবে রেক্ট্যাঙ্গলটিকে একটি বাঁকানো আকৃতির মধ্যে খাপ খাওয়ানোর জন্য ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ)-এর সাথে পেন টুল (পি) ব্যবহার করুন।

adjust rectangle

টেক্সট এবং লোগো যোগ করা

ধাপ ১

নতুন একটি এলিপ্স (ইউ) তৈরি করুন। এটির ডাইমেনশন ২৪৮ পিক্সেল বাই ২৪৮ পিক্সেলে সেট করুন। এটিকে ব্রাউন রং (C=30 M=80 Y=100 K=30) দিয়ে পূর্ণ করুন।

add ellipse

ধাপ ২

ড্রপ শ্যাডো ইফেক্ট যোগ করুন। ওপাসিটি ১৪%, ডিসট্যান্স ৫ পিক্সেল, এবং সাইজ ১৫ পিক্সেলে সেট করুন।

add drop shadow
লেয়ার প্যানের fx বাটন থেকে লেয়ারে একটি ড্রপ শ্যাডো যোগ করুন।
tweak shadow
আপনার ড্রপ শ্যাডোটিকে এই সেটিং অনুযায়ী পরিবর্তন করুন

ধাপ ৩

একটি নতুন এলিপ্স (ইউ) তৈরি করুন। এটির ডাইমেনশন ৪০০ পিক্সেল বাই ৪০০ পিক্সেলে সেট করুন। এটিকে গাঢ় নীল রং (C=100 M=80 Y=45 K=50) দিয়ে পূর্ণ করুন।

add another ellipse

ধাপ ৪

ওই একই ড্রপ শ্যাডো ইফেক্ট ব্যবহার করুন এবং এলিপ্সে প্রয়োগ করুন। আপনি চাইলে শ্যাডোটি নতুন করে তৈরি করতে পারেন অথবা রাইট ক্লিক করে কপি লেয়ার স্টাইল সিলেক্ট করে অন্য এলিপ্সটিতে লেয়ার স্টাইল পেস্ট করতে পারেন। ব্রাউন এলিপ্সসহ যে লেয়ারটি তার নিচে গাঢ় নীল এলিপ্সসহ লেয়ায়রটি স্থাপন করুন।

reuse drop shadow effect

ধাপ ৫

টাইপ টুল (টি)-এর সাহায্যে টেক্সট যোগ করুন। এই টিউটোরিয়ালটি প্রক্সিমা নোভা ফ্যামিলি ব্যবহার করেছে। টপ টাইটেল সাইজ হচ্ছে ১৭ পয়েন্ট। বাকি থাকা প্রতিটি টেক্সট ভিন্ন ভিন্ন লেয়ারে যোগ করুন। প্রতিটি লাইন অবস্থান মোতাবেক স্থাপন করতে মুভ টুল (ভি) ব্যবহার করুন। নিচের ইমেজে দেখানো হয়েছে।

add text

ধাপ ৬

নতুন টেক্সট যোগ করতে একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন। প্রথম লাইনের সাইজ ৩১ পয়েন্টে সেট করুন।

add new text

ধাপ ৭

টাইপ টুল (টি) ব্যবহার করে নতুন একটি টাইটেল তৈরি করুন। ফন্টটি প্রক্সিমা নোভা লাইট এবং সাইজ ১৮ পয়েন্টে সেট করুন।

add title

ধাপ ৮

আবারও টাইপ টুল (টি) ব্যবহার করে সাবটাইটেল যোগ করুন। সাইজ ৩৬ পয়েন্টে সেট করুন। ক্যারেক্টার ট্র্যাকিং -১০-এ নিয়ে আসুন।

add subtitle

ধাপ ৯

দুইটি টেক্সট লেয়ারই সিলেক্ট করুন। অলটার কী চেপে ধরে টেক্সটটিকে টেনে নিচে নামান যাতে দুইটি লাইনই নিচে ডুপ্লিকেট হয়ে যায়।

duplicate text

ধাপ ১০

আবারও, টাইপ টুল (টি) ব্যবহার করে নিচের ইমেজ অনুযায়ী টেক্সটটি আবারও লিখুন। মুভ টুল (ভি)-এর সাহায্যে টেক্সটটি স্থাপন করুন।

rewrite and reposition text

ধাপ ১১

File > Place Embedded-এ যান এবং acme-travel-logo.ai ভেক্টর লোগোটি ডকুমেন্টে স্থাপন করুন।

add logo

ধাপ ১২

ভেক্টর লোগোটি আকারে ছোট করে ফেলুন এবং উপরের ডান কোণায় স্থাপন করুন।

scale and place logo

ধাপ ১৩

ড্রপ শ্যাডো ইফেক্ট যোগ করুন। লেয়ার স্টাইল প্যানেলে, ওপাসিটি ১১%, ডিসট্যান্স ৩ পিক্সেল, এবং সাইজ ১৬ পিক্সেলে সেট করুন।

add drop shadow to logo

নিচের দিকের ফটোগ্রাফগুলো যোগ করুন

ধাপ ১

একটি নতুন রেক্ট্যাঙ্গল (ইউ) তৈরি করুন। এটির সাইজ ৬০ পিক্সেল বাই ২৮ পিক্সেলে সেট করুন।

add rectangle for bottom text

ধাপ ২

ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ)-এর সাহায্যে রেক্ট্যাঙ্গল আকৃতি সিলেক্ট করুন। অ্যালাইন প্যানেলে হরাইজন্টাল সেন্টার সেট করুন।

set horizontal centers

ধাপ ৩

File > Place Embedded-এ যান এবং রিসোর্স প্যাক থেকে people-11.jpg ফটোটি স্থাপন করুন।

ধাপ ৪

ইমেজটি আকারে ছোট করে নিয়ে আসুন এবং সরাসরি রেক্ট্যাঙ্গলের মধ্যে স্থাপন করুন।

scale image

ধাপ ৫

রেক্ট্যাঙ্গল টুল (ইউ) একটিভেট করুন এবং অপশন প্যানেলে মাস্ক-এ ক্লিক করুন। এতে করে রেক্ট্যাঙ্গল থেকে একটি ভেক্টর মাস্ক তৈরি হবে। এবার এটিকে ফটোতে অ্যাপ্লাই করুন।

add vector mask

ধাপ ৬

ফটো লেয়ার সিলেক্ট করা অবস্থাতেই অলটার-শিফট চেপে ধরে ফটোটিকে টেনে নিয়ে ডুপ্লিকেট করুন।

duplicate picture

ধাপ ৭

File > Place Embedded-এ যান। রিসোর্স প্যাক থেকে city-5.jpg ফটোটি সিলেক্ট করুন এবং ডকুমেন্টে যোগ করুন।

place city photo

ধাপ ৮

ইমেজটি আকারে ছোট করে নিন এবং মেয়েটির ডুপ্লিকেটেড ছবির উপরে স্থাপন করুন।

place second image

ধাপ ৯

মেয়েটির ডুপ্লিকেটেড ছবি থেকে মাস্কটি নিয়ে নিন এবং নতুন ইমেজে স্থাপন করে দিন। এরপর people-11-copy লেয়ারটি ডিলিট করে দিন।

move mask then delete layer

ধাপ ১০

ডকুমেন্টে মানচিত্রের স্ক্রিনশট যোগ করার জন্য ৭ থেকে ৯ নাম্বার ধাপ আবারও অনুসরণ করুন। এইবার মানচিত্রের ছবি দিয়ে করতে হবে কাজটি।

add map

ধাপ ১১

ম্যাপ-স্ক্রিনশট লেয়ার সিলেক্ট করুন এবং লেয়ার প্যানের ইফেক্টস বাটন থেকে স্ট্রোক যোগ করুন।

add stroke

ধাপ ১২

স্ট্রোক সাইজ ২ পিক্সেলে সেট করুন। পজিশন ইনসাইড-এ ঠিক করুন এবং কালার ব্রাউন (C=30 M=80 Y=100 K=30) হিসেবে সেট করুন।

tweak stroke

নিচের দিকের টেক্সট যোগ করা

ধাপ ১

টেক্সটের নতুন দৃষ্টান্ত তৈরি করতে টাইপ টুল (টি) ব্যবহার করুন। এটার সাইজ ১১ পয়েন্টে এবং কালার হালকা ব্রাউন (C=10 M=65 Y=100 K=0)-তে সেট করুন।

add bottom text

ধাপ ২

আরও লাইন যোগ করুন। সাইজ ৯ পয়েন্টে সেট করুন, লিডিং ১৩ পয়েন্টে নিয়ে আসুন, এবং কালার গ্রে (K=90)-তে পরিবর্তন করুন।

add more lines of text

ধাপ ৩

টেক্সটের নতুন ব্লক তৈরি করতে একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন। এগুলোকে মেয়েটির ছবি এবং মানচিত্রের স্ক্রিনশটের নিচে স্থাপন করুন।

add text block

ধাপ ৪

File > Place Embedded-এ যান... ডকুমেন্টে আইকন ইম্পোর্ট করার জন্য icons.ai সিলেক্ট করুন। একটা নতুন কন্টেক্সচুয়াল উইন্ডো দেখা দিবে। ক্যালেন্ডার আইকনটি সিলেক্ট করুন এবং ওকে ক্লিক করুন।

insert calendar icon

ধাপ ৫

আইকনটি ছোট করে নিন এবং টাইম ইনফরমেশনের সাথে প্রথম লাইনে এটি স্থাপন করুন।

place calendar icon

ধাপ ৬

বাকি আইকনগুলো ইম্পোর্ট করা এবং প্রতি লাইনের পড়ে সেগুলোকে স্থাপন করার জন্য একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন।

add remaining icons

ধাপ ৭

নতুন টেক্সট যোগ করতে টাইপ টুল (টি) ব্যবহার করুন। মানচিত্রের স্ক্রিনশটের উপরে এটি স্থাপন করুন। সাইজ ১৩ পয়েন্টে সেট করুন, লিডিং ১১ পয়েন্টে নিয়ে আসুন, এবং কালার হালকা ব্রাউনে (C=10 M=65 Y=100 K=0) পরিবর্তন করুন।

add map text

ধাপ ৪

থিকানার জন্য টেক্সটের নতুন লাইন যোগ করতে আবারও একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন। সাইজ ৯ পয়েন্টে সেট করুন এবং কালার গ্রে (K=90)-তে পরিবর্তন করুন।

add address

ধাপ ৯

File > Place Embedded-এ যান..., আবারও icons.ai সিলেক্ট করুন এবং ডকুমেন্টে গ্লোব ভেক্টর আইকন ইম্পোর্ট করে নিয়ে আসুন।

add globe icon

ধাপ ১০

আইকনটি ছোট করে নিয়ে আসুন এবং ওয়েব অ্যাড্রেসের পাশে বসিয়ে দিন।

place world icon

ধাপ ১১

পেন টুল (পি) একটিভেট করুন এবং মানচিত্রের নির্দেশনার প্রতিনিধিত্ব করবে এমন একটি ভেক্টর শেইপ তৈরি করুন।

Add direction vector

ধাপ ১২

অপশনস প্যানেলে, স্ট্রোক ড্যাশড-এ এবং কালার হালকা ব্রাউনে (C=10 M=65 Y=100 K=0) সেট করুন। স্ট্রোকের প্রস্থ ১,৫ পয়েন্টে নিয়ে আসুন।

make dashed stroke

ধাপ ১৩

Stroke Options > More Options-এ যান..., এবং ক্যাপসকে রাউন্ড আকারে সেট করুন এবং ড্যাশস লাইন: ড্যাশ ৩-এ ও গ্যাপ ৩-এ নিয়ে আসুন।

adjust stroke

ধাপ ১৪

একটি নতুন এলিপ্স (ইউ) তৈরি করুন। কালার ব্রাউনে (C=30 M=80 Y=100 K=30) সেট করুন।

add ellipse to map

ধাপ ১৫

পেন টুল (পি) একটিভেট করুন। অলটার কী চেপে ধরুন এবং নিচের অ্যাংকর পয়েন্টে ক্লিক করুন। এতে করে অ্যাংকর পয়েন্টটি মসৃণ থেকে কোণাকুণি হয়ে যাবে।

change anchor points

ধাপ ১৬

ডিরেক্ট সিলেকশন টুল (এ)-এর সাহায্যে পরিবর্তিত অ্যাংকর পয়েন্টটি নিচে সরিয়ে নিন।

move anchor point

ধাপ ১৭

ড্রপ শ্যাডো ইফেক্ট পিনের সাথে যুক্ত করে দিন। নিচের প্রদর্শিত সেটিং ব্যবহার করে এটিকে আরও নিখুঁত করে তুলুন।

add drop shadow to anchor

ধাপ ১৮

আবার, নতুন একটি এলিপ্স (ইউ) তৈরি করুন এবং হোয়াইট দিয়ে কালার ফিল করুন। এলিপ্সটিকে পিনের কেন্দ্রে স্থাপন করুন। এভাবে আমাদের ফ্লায়ার ডিজাইনে শেশবারের মতো কাজ করে ফেললাম।

add new white ellipse

উপসংহার

অভিনন্দন! আপনি যদি টিউটোরিয়ালটি এতদুর পর্যন্ত শেষ করে থাকেন তাহলে এর মধ্যে খুব সুন্দর একটি প্রমোশনাল ফ্লায়ার তৈরি হয়ে যাওয়ার কথা।

মনে রাখবেন: প্রতিবার ডিজিটাল প্রিন্টের জন্য ইমেজ ডিজাইন করার সময় সেরা কাজটি বের করে আনতে আপনাকে সব সময় সিএমওয়াইকে রঙের কথা চিন্তা করে কাজ করতে হবে। ক্যানভাসে ব্লিড যোগ করতে ভুলবেন না (প্রতি কিনারার জন্য অন্তত ৩ মি.মি.)। কিছু অ্যাডভান্সড টেকনিক্যাল ধ্রুবকের ব্যাপারে আপনি যদি অনিশ্চিত থাকেন তাহলে যে কোন ভুল বা সমস্যা এড়িয়ে চলতে সরাসরি প্রিন্টিং কোম্পানির সাথে আলাপ করে নিন।

এই সিরিজের পরবর্তী টিউটোরিয়ালে ইনডিজাইনে কিভাবে এই ফ্লায়ারটি  বসানো যায় এবং প্রিন্টিঙের উপযোগী পিডিএফ আকারে প্রস্তুত করা যায় তা জানবো। ইতোমধ্যে, ফটোশপে প্রিন্ট ডিজাইন নিয়ে আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে নিচের কমেন্টে লিখুন। আপনাদের সাহায্য করতে পারলে আমরা খুশি হব।

Advertisement
Advertisement
Looking for something to help kick start your next project?
Envato Market has a range of items for sale to help get you started.